Monday April12,2021

করোনার টিকা নেওয়ার পর যে ৯টি বিষয় মাথায় রাখতেই হবে, পরামর্শ আমেরিকার সিডিসি-র

দেশে টিকাকরণ চলছে জোরকদমে। টিকা নিয়ে প্রাথমিক ভীতি কাটিয়ে অনেকেই এখন সাগ্রহে টিকা নিতে যাচ্ছেন। কিন্তু টিকা নেওয়ার পরেও বেশ কয়েকটি বিষয় টিকাপ্রাপ্তকে মাথায় রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে করোনার সঙ্গে যুদ্ধ এখনও শেষ হয়নি। আমেরিকার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও নিরাময় সংস্থা (সিডিসি) সম্প্রতি একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, যেখানে টিকাকরণের পর কী কী নিয়ম মেনে চলতে হবে তা সবিস্তারে বলা হয়েছে। ভারতের ক্ষেত্রেও এই নিয়মগুলির অনেকটাই গুরুত্ব আছে।

প্রথমত মাস্ক পরার অভ্যাস ছাড়লে চলবে না। করোনা সংক্রমিত হওয়ার পর থেকেই নিয়মিত মাস্ক পরার অভ্যাস তৈরি হয়েছে বিশ্বের। টিকা নেওয়ার পর সেই অভ্যাস ঝেড়ে ফেললে চলবে না। নিয়মিত মাস্ক পরতেই হবে। যতদিন না দেশের ৭০ থেকে ৮৫ শতাংশ মানুষের টিকাকরণ না হয়, দেশের মানুষের ‘হার্ড ইমিউনিটি’ অর্জিত না হয়, তত দিন মাস্ক পরার মতো সাবধানতা অবলম্বন করতেই হবে। মার্কিন গবেষকরা বলছেন, টিকাকরণের পরেও আপনার করোনা হতে পারে। সেই কারণেই মাস্ক নিয়মিত পরতে হবে। আমেরিকার চিকিৎসকরা বলছেন, টিকার কার্যকারিতা রোগের প্রাবল্য কমানো। যাতে আপনাকে হাসপাতালে যেতে না হয় বা আপনার মৃত্যু না হয়। কিন্তু টিকা নেওয়ার পরেও আপনার ঝুঁকি থাকবে।

গবেষকরা বলছেন, আপনি চাইলে আত্মীয়, বন্ধু, পরিজনদের সঙ্গে দেখা করতে পারেন। ছোটখাটো অনুষ্ঠানেও অংশ নিতে পারেন। কিন্তু মনে রাখবেন, তা-ও আপনার কাছ থেকে অন্য জনের শরীরে রোগ ছড়াতে পারে। তাই মাস্ক পরা-সহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা একান্তই জরুরি। অনেকেই জানতে চান, টিকা নেওয়ার পর যদি করোনা আক্রান্তের কাছাকাছি যদি আপনি আসেন, তা হলে কি নিভৃতবাসে থাকা জরুরি? আমেরিকার চিকিৎসকরা বলছেন, না, সেটা জরুরি নয়। তবে যদি কোনও কারণে রোগের লক্ষণ প্রকাশ পায়, সিডিসি জানাচ্ছে, তাহলে একবার পরীক্ষা করে নেওয়াই উচিত। তবে টিকা নেওয়ার পরেও নিয়মিত গণপরিবহণে যাতায়াত করা ঠিক নয়। কারণ গণপরিবহনে নিয়মিত যাতায়াত করলে করোনা ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা স্বাভাবিক কারণেই কিছুটা বেড়ে যায়। তাই বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি।

এতদিন ধরে অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে নিয়মিত শারীরিক পরীক্ষা, ডাক্তার দেখানো বন্ধ রেখেছিলেন। সেগুলি আবার শুরু করতে পারেন টিকা নেওয়ার পর। তবে আপনাদের মনে রাখতে হবে, একটা ‘বুস্টার ডোজ’ আপনার প্রয়োজন হতে পারে। যাই হোক, দেশের বেশির ভাগ মানুষের টিকাকরণ যতদিন না হচ্ছে, দেশের মানুষ ‘হার্ড ইমিউনিটি’ অর্জন না করছেন, তত দিন স্বাভাবিক জীবনে ফেরা উচিত নয় বলেই মনে করছে সিডিসি। এই সময়ে তাই নিয়মিত যাতায়াত উচিত হবে না। টিকা নেওয়ার দিন ক্ষণ লিখিত রাখুন, দরকারে সেটি পরবর্তীতে কাজে লাগতে পারে। যে নথি টিকাকরণের কেন্দ্র থেকে যে নথি দেওয়া হচ্ছে, সেটি যত্ন করে রাখুন।

সুত্র, আনন্দবাজার পত্রিকা ।