Wednesday April14,2021

মধ্য আফ্রিকার দেশ ইকুয়েটোরিয়াল গিনিতে রোববার (৭ মার্চ) বিকেলে ভয়াবহ এক বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে নিহত হয়েছে অন্তত ২০ জন। আহত হয়েছে ৬ শতাধিক। খবর দ্য গার্ডিয়ান, আল জাজিরা ও আনাদোলু এজেন্সির।

গিনির সবচেয়ে বড় শহর ও বাণিজ্যিক নগরী খ্যাত বাটার একটি সামরিক ব্যারাকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রেসিডেন্ট তেওদোরো ওবিয়াং জানিয়েছেন ডিনামাইটের মতো বিস্ফোরক দ্রব্য অযাচিতভাবে রাখার কারণেই এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। ১৯৪২ সাল থেকে গিনিকে শাসন করা এই প্রেসিডেন্ট আরো জানিয়েছেন এই ঘটনায় অন্তত ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৫০০ জন।

প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের দুই ঘণ্টা পর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া এক বার্তা থেকে জানা গেছে বিস্ফোরণের ঘটনায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে ৪২০ জন। হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে মন্ত্রণালয় থেকে শঙ্কা করা হয়েছে।

স্থানীয় কয়েকটি টেলিভিশনের খবরে দেখা গেছে লোকজন ধ্বংসস্তুপ থেকে আহত ও নিহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে। ট্রাক, পিক-আপ ও ভ্যানে করে আহতদের বাটা জেনারেল হাসপাতাল ও নুয়েভো ইনসেসো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তাদের মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে। স্থানীয় হাসপাতালগুলোতে আহতদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সর্বসাধারণকে রক্তদানের জন্য আহ্বান করা হচ্ছে।

যাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

এদিকে ঘটনাস্থলেই মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন করে আহতদের চিকিৎসা সেবা দিতে শুরু করেছে সামরিক বাহিনীর একটি ইউনিট।