Monday April12,2021

নিউজিল্যান্ডে দফায় দফায় আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। দেশটির উপকূলে স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী আরও একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে।

বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে। তৃতীয় ভূমিকম্পের পর আবারও জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। উপকূলীয় লোকজনকে উচু ও নিরাপদ স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে নিউজিল্যান্ডে অবস্থান করছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। এই ভূমিকম্পে ক্রিকেটারদের কারও কোনো ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে বিসিবি।

ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান গণমাধ্যমকে জানান, সবাই সুস্থ আছে। লজিস্টিকস ম্যানেজার সাব্বির খানের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনিই জানিয়েছেন, কারও কোনো সমস্যা হয়নি। গভীর রাতে ভূমিকম্প হয়েছে। দলের সবাই তখন ঘুমিয়ে ছিল। কেউই আসলে টের পায়নি।

ভূমিকম্পের ঘটনায় নিউজিল্যান্ডের বেসামরিক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কিরি অ্যালান বলেছেন, যারা উঁচু ও নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন, সরকারিভাবে স্পষ্ট নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত তাদেরকে স্ব-স্ব স্থানে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।

নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় কেরমাডেক আইল্যান্ডে সবশেষ ৮ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। একই এলাকায় ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাতের পরপরই ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। এর আগে দিনের শুরুতে নর্থ আইল্যান্ডের প্রায় ৯০০ কিলোমিটার দূরে ৭ দশমিক ২ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে।

তবে এই ঘটনায় এখনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। শুক্রবার (৫ মার্চ) ৮ ঘণ্টার কম সময়ের মধ্যে দেশটিতে আঘাত হানে তিনটি ভূমিকম্প।

এর আগে ২০১১ সালে একটি ৬ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প সরাসরি আঘাত হেনেছিল নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে। শহরটির অর্ধেক প্রায় ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। ১৮৫ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছিল ওই ঘটনায়।