Tuesday April20,2021

আমরা রাজপথে নামি আর না নামি, সরকার থাকবে না। বিএনপি জনগণের কাছে শিরোপা পাবে কি না, বাহবা পাবে কি না, সে কথাটা ভেবে বিএনপিকে আগামীর পথ চলতে হবে। আওয়ামী লীগের যে চরিত্র, আওয়ামী লীগ যা চায়, তাতে আওয়ামী লীগ আওয়ামী লীগের জন্য। আর মানুষ মানুষের জন্য। আওয়ামী লীগ মানুষের জন্য না।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘গণতন্ত্র, গণমাধ্যম, গণকন্ঠ অবরুদ্ধ বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ কোন পথে?’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এসব কথা বলেছেন।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কঠোর সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, আওয়ামী লীগকে মানুষের কাতারে ফেলানো যায় না। সেই ক্ষেত্রে ওরা সফল। ওরা ওদের কাজে ব্যর্থ না, ওরা পত্রিকা বন্ধ করা, পায়ের রগ কাটা, সাংবাদিক পেটানো, চুরিচামারি, মানুষের সম্পত্তি দখল, শিশু-নারী নির্যাতন, ব্যাংক ডাকাতি, ছিনতাই- সবই করছে। এটা ওদের অর্ধশত বছরের ঐতিহ্য।

গয়েশ্বর বলেন, দেশ স্বাধীন হয়েছিল যুদ্ধের মাধ্যমে, দেশ স্বাধীন কোনো বক্তব্যের মাধ্যমে হয়নি। যে যুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন হয়েছিল সেই যুদ্ধের ডাক দিয়েছিলেন জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমানের খেতাব কে দিল, কি দিল না- জিয়াউর রহমানের কে কি বলল, কি বলল না তাতে কিছু যায় আসে না। জিয়াউর রহমান জিয়াউর রহমানের জায়গায় আছেন। জিয়াউর রহমানের জায়গায় থাকবেন।

তিনি বলেন, ওরা (আওয়ামী লীগ) মাঝেমধ্যে আমাদের সংবেদনশীল জায়গায় স্পর্শ করবে, আঘাত করবে। সেটা নিয়ে যদি আমরা ব্যস্ত হই তাহলে তারা আরামে দিন কাটাবে। গত ১২-১৩ বছর ধরে আমরা তাই দেখছি।

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সংগ্রাম পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সংগ্রাম পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সাহেদুল ইসলাম (লরেন) প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

facebook sharing button
messenger sharing button
twitter sharing button
pinterest sharing button
linkedin sharing button