Saturday February27,2021

“অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’র মেন” (ALL THE PRIME MINISTER’S MEN) শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ ও প্রচারের ঘটনায় কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার ডিরেক্টর জেনারেল (এডিটর ইন চিফ) মোস্তেফা সরওয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করা হয়েছে। বৈধভাবে প্রতিষ্ঠিত সরকারকে উৎখাত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে এ মামলার আবেদন করা হয়েছে। তবে এখনও মামলা গ্রহণের বিষয়ে শুনানি হয়নি। 

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাপতি ও প্রতিষ্ঠাতা আবদুল মালেক ওরফে মশিউর মালেক বাদী হয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজেস্ট্রেট আশেক ইমামের আদালতে এ আবেদন করেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- যুক্তরাজ্য প্রবাসী ডেভিড বার্গম্যান, শায়ের জুলকার নাইন ওরফে সামি ও নেত্র নিউজের সম্পাদক তাসনিম খলিল।

রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করার ক্ষেত্রে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে অনুমোদন না থাকার বিষয়ে মামলার বাদী মশিউর মালেক সাংবাদিকদের বলেন, ‘আদালত নিজ ক্ষমতাবলে এ অনুমোদন বিষয়ে যেকোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।’

বাদীপক্ষের আরেক আইনজীবী সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর হেমায়েত উদ্দিন খান হীরণ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘মামলা আমলে নেয়ার জন্য অবশ্যই অনুমোদন প্রয়োজন হবে এবং আদালত তা নিজ ক্ষমতাবলে ব্যবস্থা করে নিতে পারবেন।’

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজসে একই উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ সরকার ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সুনামহানি করে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে অপপ্রচার চালিয়ে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড চালিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক অপরাধে লিপ্ত আছে। তারা যৌথভাবে তাদের অজ্ঞাতনামা সহযোগীদের নিয়ে ভুয়া মিথ্যা তথ্য সম্বলিত প্রতিবেদন তৈরি করে গত ১ ফেব্রুয়ারি রাতে “অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’র মেন” (ALL THE PRIME MINISTER’S MEN) শিরোনামে বাংলাদেশ রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী একটি তথ্যচিত্র প্রতিবেদন প্রচার করে। উক্ত প্রতিবেদন ইউটিউবেও ব্যাপকভাবে প্রচার করা হয়। যা পরদিন বিভিন্ন মুদ্রিত ও অনলাইন পত্রিকায় ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়েছে।

এজাহারে আরও বলা হয়, আসামিরা উক্ত প্রতিবেদনে কোনও সুনির্দিষ্ট ও সুস্পষ্ট কোনও বক্তব্য না দিয়ে এবং তথ্য-উপাত্ত বা দলিলাদি উপস্থাপন না করেই ষড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে শুধুমাত্র কিছু ব্যক্তিগত পারিবারিক অনুষ্ঠানাদি ও সাক্ষাৎকারের ছবি ব্যবহার করে, কণ্ঠস্বর সম্পাদনা করে একটি কাল্পনিক ভুয়া, মিথ্যা ও সাজানো তথ্যচিত্রের প্রতিবেদন তৈরি করে তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহারের মাধ্যমে আল-জাজিরা টেলিভিশনসহ ইউটিউবের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বে অপপ্রচার করেছে। যা দেশে-বিদেশে বাংলাদেশ সরকার ও রাষ্ট্রের সুনাম ও মর্যাদার হানি ঘটিয়েছে।
এ কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আসামিরা বাংলাদেশের দণ্ডবিধির ১২৪/১২৪(এ)/১০৯/৩৪ ধারায় অপরাধ করেছে বলেও সেখানে বলা হয়।

গত ১ ফেব্রুয়ারি কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা টিভিতে “অল দ্য প্রাইম মিনিস্টার’র মেন” (ALL THE PRIME MINISTER’S MEN) শিরোনামে একটি অনুসন্ধানী তথ্যচিত্র প্রতিবেদন সম্প্রচার হয়। বাংলাদেশ সরকার এক বিবৃতিতে প্রতিবেদনটিকে ‘ভিত্তিহীন ও অপপ্রচারমূলক’ দাবি করে প্রতিবাদ জানিয়েছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিবৃতিতেও প্রতিবেদনটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।