Saturday March6,2021

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে টেস্টে বিধ্বস্ত হয়েছে বাংলাদেশ। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথমটি পাঁচ দিনে গড়ালেও শেষটি হারে একদিন আগেই। দলের এমন বিপর্যয়ে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

রোববার বাংলাদেশের হারের পরের মিরপুরের শের-ই-বাংলায় সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন বিসিবি প্রধান। চেহারায় ছিল হতাশা; কথায় ছিল ক্ষোভ। ক্রিকেটারদের হতাশজনক পারফরম্যান্সের সঙ্গে দলের গঠন নিয়েও তুলেছেন প্রশ্ন।

অধিনায়ক মুমিনুল হক ও প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোসহ সবার কাছেই এই হোয়াইটওয়াশের জন্য জবাবদিহি চান নাজমুল। প্রশ্ন তুলেছেন দলে পেসারের ঘাটতি নিয়ে। দুই টেস্টেই একজন করে পেসার খেলিয়েছে বাংলাদেশ। বিষয়টি নিয়ে বোর্ড সভাপতি বললেন, ‘দলে পাঁচটা পেসার আছে। কেন খেলছে না? চট্টগ্রামে খেলার কথা ছিল, খেলেনি। এখানেও অন্তত দুইজন খেলবে আমাকে নিশ্চিত করেছিল। কিন্তু খেলেনি কেন? আমাকে তো বলা হচ্ছে খেলবে। পরে তো দেখি নামছে না। অধিনায়ক আর কোচ সিদ্ধান্ত নেয়। এখানে আমরা তো আর কেউ নেই! জবাবদিহি চাইবো সবার কাছে। শুধু অধিনায়ক আর কোচ না, সবার কাছে চাইবো।’

প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ হারে ৩ উইকেটে। আর দ্বিতীয় টেস্টে ১৭ রানে। ক্রিকেটারদের মধ্যে দেখা গেছে নির্লিপ্ততা। শরীরী ভাষায় ছিল না কোনও ক্ষিপ্রতা। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট বিলিয়ে এসেছেন প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা। প্রয়োজনের সময় নেননি রিভিউ। সবকিছু মিলিয়ে সাদাপোশাকে বাংলাদেশের অবস্থা ছিল দৃষ্টিকটু

নাজমুল বলেন, ‘সমস্যা সব জায়গায় আছে, এটা তো স্বীকারই করে নিচ্ছি। দুটি টেস্ট সিরিজ দেখে বুঝেছি সমস্যা তো আছেই। একটা দেখে কিছু বলতে পারিনি তেমন। এবার তো আপনাদেরকে বললাম। আমার কাছে মনে হয়েছে, আমাদের পরিকল্পনায় সমস্যা আছে।’