Tuesday January26,2021

কক্সবাজারে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবির) দায়ের করা ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলায় জামিন পেয়েছেন নারী এনজিওকর্মী ফারজানা আক্তার (২৬)।

ফারজানা আক্তার আজ বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাঁর জামিন মন্জুর করেন।

ফারজানা আক্তারের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবদুশুক্কুর জানান, ‘ভিকটিম নির্যাতনের শিকার। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে জামিন মন্জুর করেছেন। মামলা শেষে আমার ভিকটিম নির্দোষ প্রমাণিত হবে।’

বিজিবির পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুল করিম বলেন, ‘আদালত জামিন দিতে পারেন। তাই বলে মামলা শেষ হয়নি। তিনি আদালতে দোষী প্রমাণিত হবেন।’

২০২০ সালের ৮ অক্টোবর টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ দমদমিয়া চেকপোস্টে অটোরিকশা যাত্রী বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) ব্লাস্ট-এর কর্মী ফারজানা আক্তারকে তল্লাশি করেন বিজিবি সদস্যরা। ওই ঘটনায় বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলেন ওই এনজিওকর্মী। ঘটনাটি মিথ্যা দাবি করে গত ১০ নভেম্বর কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ওই মামলার আসামির বিরুদ্ধে ফৌজদারি ৫০০ ধারায় ১০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা দায়ের করে বিজিবির নায়েব সুবেদার বাদি মোহাম্মদ আলি মোল্লা।

মামলাটি পুলিশকে তদন্ত করার নির্দেশ দেন আদালত। পরে টেকনাফ থানার ওসি (অপারেশন) ইন্সপেক্টর শরিফুল ইসলাম আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। গতবছরের ২২ নভেম্বর মামলাটির তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে আসামির বিরুদ্ধে সমন ইস্যু করেন বিচারক।