Tuesday January26,2021

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলায় ছেলের দ্বিতীয় বিয়েতে মায়ের সম্মতি না থাকায় কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মাকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত ছেলেকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আবদুল মান্নান এ আদেশ দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম মন্তাজুল আলম (৩৬)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাজারহাট উপজেলার উমরপান্থাবাড়ি গ্রামের সোলায়মান আলীর ছেলে মন্তাজুল আলমের স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যান। এতে তিনি কিছুটা মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন।

গত বছরের ২০ মার্চ দুপুরে মন্তাজুল দ্বিতীয় বিয়ের দাবিতে তার মা মেহেরজান বেগম মিনুকে (৫৮) চাপ দিলে তিনি অসম্মতি জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কুড়াল দিয়ে তার মাকে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করে মন্তাজুল আলম। পরে স্থানীয়রা মন্তাজুলকে আটক করে পুলিশে দেয়।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ও অভিযুক্তের বাবা সোলায়মান আলী বাদী হয়ে ছেলে মন্তাজুলকে আসামি করে রাজারহাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আজ আদালত মন্তাজুলকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) আব্রাহাম লিংকন। আর আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন লিগ্যাল এইড নিযুক্ত অ্যাডভোকেট এরশাদুল হক শাহিন।