Sunday March7,2021

দীর্ঘ সাড়ে তিন মাস ভারত সরকার নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আবারো শুরু হচ্ছে পেঁয়াজের আমদানি।

আজ শনিবার (২ জানুয়ারি) থেকে দেশে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হবে। এমনটিই জানিয়েছেন বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা। বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা জানিয়েছেন ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ব্যাংকে পাঁচ-ছয় হাজার মেট্রিক টনের এলসি করা হয়েছে। ভারত থেকে পেঁয়াজ দেশে আসার খবরে দেশে পেঁয়াজের দাম কমে গেছে।

হিলি স্থলবন্দরের কাস্টমস কার্যালয় সূত্রে জানায়, সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির কারণ উল্লেখ করে গত বছরের ১৪ সেপ্টেবম্বর ভারত সরকার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এতে করে দেশে পেঁয়াজের বাজারে এর দাম কয়েক গুণ বেড়ে গেলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা পাকিস্তান, মিয়ানমার, মিশর, তুরস্ক ও চীন থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করে। হিলি বাজারের খুচরা বিক্রেতারা জানান, ভারত থেকে আজ শনিবার দেশে পেঁয়াজ আমদানি হবে এই খবর ছড়িয়ে পড়লে বাজারে প্রতি কেজিতে ছয়-আট টাকা করে দাম কমে গেছে। গতকাল শুক্রবার বিক্রি হয়েছে ৩০-৩২ টাকায়। এর আগে এই পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৩৬-৪০ টাকায়।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ জানান, আজ শনিবার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হবে। এবার রপ্তানির ক্ষেত্রে ভারত সরকার এখনো কোনো মূল্য নির্ধারণ করেনি। অনেক ব্যবসায়ী ব্যাংকে এলসি করেছেন। তবে ২০০-৩০০ ডলারের মধ্যেই আমদানি মূল্য হতে পারে। ভারতের পেঁয়াজ দেশে আমদানি হলে ২০-২৫ টাকার মধ্যে পাইকারি বিক্রি হবে। চাহিদার ওপর নির্ভর করে আমরা পেঁয়াজ আমদানি করব।