Saturday March6,2021

অপ্রত্যাশিত এক ঘটনার স্বাক্ষী হল বিশ্ব। অদৃশ্য ভাইরাস থেকে একাধিক তারকার মৃত্যু, আত্মহত্যাসহ নানান অদ্ভুত ঘটনায় বিব্রত বলিউড। মাদককাণ্ডে ঘটল নানা ঘটনা। তবে সবকিছুকে পেছনে ফেলল দীপিকার কর্মকাণ্ড। যখন সকলে নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে অপেক্ষা করে বসে আছে মানুষজন। ঠিক তখনই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নিজের সমস্ত অস্তিত্ব মুছে ফেললেন জনপ্রিয় এই নায়িকা। কিন্তু হঠাৎ এই সিদ্ধান্ত কেন নিলেন দীপিকা?

২০ সাল সাধারণ মানুষের যেরকম ভালো যায়নি ঠিক সেরকমই ভালো যায়নি বলিউডেরও। বলিউড হার্টথ্রব সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে খুলে গিয়েছিল বলিউডের এক অজানা পর্দা। সুশান্ত মৃত্যুরহস্য ভেদে মাদক যোগ পায় তদন্তকারীরা। আর সেই মাদক যোগে নাম জড়িয়ে গিয়েছিল দীপিকা পাড়ুকোনেরও।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর অফিসে গিয়ে হাজিরা দিতে হয়েছে অভিনেত্রীকে। তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটু কম একটিভ দেখা যেতো দীপিকাকে। কিন্তু এরই মাঝে কি এমন হলো বছরের শেষ দিন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সমস্ত পোস্ট মুছে ফেললেন দীপু?

৩১ ডিসেম্বর রাতে যখন ২০২০ কে বিদায় জানিয়ে ২০২১ কে স্বাগত জানানোর জন্য ব্যস্ত সকলে ঠিক সেইসময় দীপিকার ইনস্টাগ্রাম-টুইটার থেকে সব পোস্ট ডিলিট হয়ে যায়। কি ভাবছেন তবে কি দীপিকার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলও হ্যাক হয়েছে? এটা ভাবলে একদম ভুল ভাববেন।

কারণ আপাতদৃষ্টিতে হ্যাক হয়েছে বলে মনে হলেও খুঁটিয়ে দেখলেই বোঝা হচ্ছে দীপিকার প্রোফাইল ছবিটি কিন্তু বদলানো হয়েছে। এটা কিন্তু অভিনেত্রীরই কাজ। তাহলে একাজ কেনও করলেন অভিনেত্রী? এই বিষয়ে অভিনেত্রী মুখে কুলুপ আটকে দীপিকা অনুরাগীদের মত আসন্ন কোনও কর্মসূচিকে হাইলাইট করতে এই কাণ্ড করেছেন দীপু। যদি আসল কারণ কি তা কদিন বাদেই জানা যাবে। তার জন্য এখন অপেক্ষায় ছাড়া আর কোনও উপায় নেই।

তবে, সমস্ত পোস্ট সরিয়ে নিলেও দীপিকার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিগুলি দেখা যাচ্ছে। বলে রাখি, দীপিকার ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার সংখ্যা ৫২.৫ মিলিয়ন, টুইটারে ২৭.৭ মিলিয়ন। একদিকে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নিজের সমস্ত পোস্ট উড়িয়ে দিয়েছেন দীপিকা। অন্যদিকে অভিনেত্রী জয়পুরের রণথম্বোরে তার স্বামী রণবীর সিংয়ের সঙ্গে নিউ ইয়ারের ছুটি কাটাতে গিয়েছেন। সেখানে আবার আলিয়া ভাট ও রণবীর কাপুরও রয়েছেন। যদিও সেই সব কিছুর মাঝে দীপিকা কেনও তার অস্তিত্ব সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তুলে ফেললেন সেই প্রশ্নে তোলপাড় সিনে দুনিয়া।