Saturday March6,2021

করোনার নতুন স্ট্রেন ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে ব্রিটেনে। তার মধ্যেই এ বার বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমতি দিল বরিস জনসনের প্রশাসন। যদিও এই টিকা করোনার নতুন স্ট্রেনের উপর কাজ করবে কি না, তা এখনও পরীক্ষিত নয়। ফলে টিকা দেওয়া শুরু হলেও উদ্বেগ থেকেই যাচ্ছে।

ব্রিটেনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ব্রিটিশ ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকার যৌথ উদ্যোগে তৈরি হয়েছে কোভিডের টিকা। সেই টিকা মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের তৃতীয় তথা শেষ ধাপও সম্পূর্ণ হয়েছে। তার পর টিকায় পাওয়া তথ্য-পরিসংখ্যান ব্রিটেন সরকারকে জমা দিয়েছিল অ্যাস্ট্রাজেনেকা। সেই সব তথ্য বিশ্লেষণ করার পর টিকাকে সাধারণের উপর প্রয়োগের অনুমোদন দিল ব্রিটিশ সরকার।

ব্রিটেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে বুধবার বলা হয়েছে, ‘‘অক্সফোর্ডের টিকা মানবদেহে গণপ্রয়োগের অনুমোদন দেওয়ার জন্য সুপারিশ করেছিল মেডিসিনস অ্যান্ড হেল্থকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি এজেন্সি (এমএইচআরএ)। সেই সুপারিশ সরকার মেনে নিয়েছে।’’ বরিস জনসনের প্রশাসন সূত্রে খবর, শীঘ্রই এই টিকার প্রয়োগ শুরু করা হবে।

 

ব্রিটেন সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানী এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার আধিকারিকরা। অ্যাস্ট্রাজেনেকা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, করোনার নতুন স্ট্রেন-এর প্রভাব ও অন্যান্য বৈশিষ্ট্য নিয়ে গবেষণা শুরু করেছেন তাঁরা। তবে একই সঙ্গে জানানো হয়েছে, তাঁদের তৈরি টিকা নতুন স্ট্রেনের উপরেও কাজ করবে।

শুদ্ধস্বর/আইপি