Tuesday March9,2021

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করার অর্থ সবসময় ধর্ষণ নয় বলে রায় দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট।

রায়ে বিচারক বলেছেন, দীর্ঘদিন ধরে কোনো নারী নিজের ইচ্ছায় কারও সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুললে তা ধর্ষণ বলে বিবেচিত হবে না।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, সম্প্রতি এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন এক নারী। তার অভিযোগম বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন ওই ব্যক্তি।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে দায়ের হওয়া মামলার রায় দিতে গিয়ে আদালত জানায়, দীর্ঘদিন ধরে স্থাপিত যৌন সম্পর্কের ক্ষেত্রে বিয়ের প্রতিশ্রুতি প্ররোচনা হিসেবে ধরা যাবে না।

বিচারপতি বিভু ভাকরু জানান, বিয়ের মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে যৌন সম্পর্ককে তখনই ধর্ষণ হিসেবে গণ্য করা হবে, যখন কেউ সাময়িক যৌন লালসার শিকার হবেন।

হাইকোর্ট ব্যাখ্যা দিয়েছেন, ইচ্ছে না থাকা সত্ত্বেও কখনও কখনও বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাউকে যৌন সম্পর্কের জন্য পরোচিত করা হয়। ‘না’ বলার পরেও একই ধরণের প্ররোচনা দেওয়া হয় বারবার। কেবলমাত্র এ ক্ষেত্রে কাউকে বিয়ের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্যাতনের শিকার করা হয়েছে বলে ধরা যেতে পারে।