পেনসিলভানিয়াতেও ট্রাম্পের মামলা খারিজ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যাপক ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে হেরে যাওয়া অঙ্গরাজ্যগুলোতে মামলা করেছিলেন ট্রাম্প সমর্থকেরা। তবে তাতে খুব একটা লাভ হলো না। উপযুক্ত প্রমাণ দেখাতে না পারায় বেশির ভাগ জায়গাতেই খারিজ হয়ে গেছে মামলাগুলো। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হলো পেনসিলভানিয়া।

গতকাল শনিবার ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা দলের দায়ের করা মামলা খারিজ করে দিয়েছেন পেনসিলভানিয়ার এক জেলা জজ আদালত। বিবিসি, সিএনএনসহ একাধিক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্প শিবিরের পক্ষ থেকে পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে ভোটের ফলাফল যাচাই করার ওপর স্থগিতাদেশ চাওয়া হয়। তবে আবেদনটি গ্রহণের পক্ষে কোনো প্রমাণ পাননি পেনসিলভানিয়া সুপ্রিম কোর্টের ফেডারেল বিচারক ম্যাথিউ ব্র্যান।

শনিবার মার্কিন জেলা আদালতের এ বিচারক বলেছেন, বাদীরা আদালতকে প্রায় ৭০ লাখ ভোটারকে অধিকার বঞ্চিত করতে বলেছে। নির্বাচনী প্রতিযোগিতায় বাদীরা যে কঠোর প্রতিকার চেয়েছে, তেমন কোনো ঘটনা খুঁজে পায়নি এই আদালত।

অঙ্গরাজ্যটিতে এত বিপুল সংখ্যক ভোট বাতিলের দাবির সপক্ষে ট্রাম্প সমর্থকদের আইনজীবীরা বাস্তবিক প্রমাণ উপস্থাপন করতে না পারায় তাদের তীব্র ভাষায় তিরস্কার করেন এ বিচারক। তিনি বলেন, ‘কেউ যখন এমন চমকপ্রদ পরিণতির আশা করে, তখন বাদীকে শক্ত আইনি যুক্তি এবং ব্যাপক দুর্নীতির বাস্তবিক প্রমাণে সজ্জিত হয়ে আসতে হয়, যেন তাদের প্রস্তাব মেনে নে ওয়াও ছাড়া আদালতের কাছে আর কোনো বিকল্প না থাকে। কিন্তু, এমনটি ঘটেনি। এর পরিবর্তে আদালতে যোগ্যতাহীন এবং কল্পনাপ্রসূত অভিযোগের দুর্বল আইনি যুক্তি উপস্থাপন করা হয়েছে, যার কোনো প্রমাণও নেই।’

এদিকে, আদালতের এমন পদক্ষেপে অবশ্য দমে যায়নি ট্রাম্প শিবির। ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি বলেছেন, এমন খারিজ হওয়া তাদের জন্য ভালো হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের বিজয়ী হওয়ার ফল পাল্টে দিতে পেনসিলভানিয়াতে মামলায় জেতা খুবই জরুরি ছিল ট্রাম্পের। এ রাজ্যটিসহ নির্বাচনের দিন থেকে এ পর্যন্ত রিপাবলিকান শিবিরের অন্তত ৩০টি মামলা বাতিল করা হলো।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: