এবার বলিউডের নতুন সিনেমা মুক্তি পাবে বাংলাদেশে

বলিউডের নতুন সিনেমা আগামী ছয় মাসের মধ্যে বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে মুক্তি পেতে শুরু করবে। ভারতের সঙ্গে একযোগে এদেশেও এসব ছবি মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। করোনাকালীন সময়ে দর্শক সংকট কাটাতে বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলোতে হিন্দি ছবি চালানোর প্রস্তাব করেছেন হল মালিকরা। সিনেমা হলগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়া ঠেকাতে এমন পদক্ষেপের বিকল্প নেই বলে তাদের মত।

বাংলাদেশ হল মালিক সমিতির নেতাসহ অন্যান্যরা তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সাথে এক বৈঠকে বলিউডের দশটি সিনেমা চালানোর প্রস্তাব দিয়েছেন। তথ্যমন্ত্রী হল মালিক সমিতিকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে একটি লিখিত প্রস্তাব দিতে বলেছেন। লিখিত পাওয়ার পর মন্ত্রণালয় থেকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

সিনেমাগুলো ভারতের সাথে একযোগে বাংলাদেশে মুক্তি পাবে নাকি বলিউডের পুরোনো সিনেমা চালানো হবে তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

লিখিত পাওয়ার পর মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা করে তা নির্ধারণ করবে। সিনেমা চালুর দিন তারিখও সেসময় নির্ধারিত হবে।

এর আগেও বেশ কয়েকবার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পুরনো হিন্দি সিনেমা মুক্তিও পেয়েছে।

তবে চলচ্চিত্রের নানা সংগঠনের নেতাকর্মীদের আন্দোলনের মুখে সেটি খুব একটা সফল হতে পারেনি। আবারও শোনা যাচ্ছে বলিউডের সিনেমা মুক্তি পাবে বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলোতে। ভারতে মুক্তির দিনেই বাংলাদেশে মুক্তি দেয়া হবে বলিউডের সিনেমা।

সাফটা চুক্তিকে কিছুটা ‘আপগ্রেড’ করে এমন সিদ্ধান্তের দিকেই হাঁটছেন বাংলাদেশের হল মালিকরা। এই তথ্য জানালেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সহসভাপতি মিয়া আলাউদ্দিন।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, ‘দেশীয় প্রযোজকদেরও বলিউডের সিনেমা মুক্তির ব্যাপারে সমর্থন রয়েছে। ’ মূলত হল ব্যবসা বাঁচিয়ে রাখতেই সবাই এই সিদ্ধান্তে মত দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: