শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী রুটে সব ধরনের নৌযান বন্ধ

বৈরি আবহাওয়ায় দুর্ঘটনা এড়াতে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ রুটে নাব্যতা সংকটের কারণে আগে থেকেই বন্ধ ছিল ফেরি চলাচল। 

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত অবিরাম বৃষ্টিপাতে খরস্রোতা পদ্মা উত্তাল হয়ে উঠেছে। বড় বড় ঢেউ আছড়ে পড়ছে পাড়ে। কোথাও কোথাও ঘূর্ণায়মান স্রোত প্রবাহিত হচ্ছে।

এমনিতেই নৌ-চ্যানেলে নাব্যতা সংকটের কারণে গুরুত্বপূর্ণ এ নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ হওয়ার পর লঞ্চ চলাচলও মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছিল। এর মধ্যে বৈরি আবহাওয়ায় শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী নৌরুটে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত থাকায় বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় বিআইডব্লিউটিএ। সন্ধ্যায় বন্ধ হয়ে যায় স্পিডবোট চলাচলও। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত নৌরুটে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডাব্লিউটিএ’র পরিদর্শক মোহাম্মদ সোলেমান হোসেন জানান, বৈরি আবহাওয়ার কারণে শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী নৌরুটে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত চলমান রয়েছে। এছাড়া বৈরি আবহাওয়ায় খরস্রোতা পদ্মা উত্তাল হয়ে ওঠায় নিরাপত্তাজনিত কারণে নৌরুটে সব ধরনের নৌযানে যান ও যাত্রী পারাপার বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল শুরু করবে কর্তৃপক্ষ।

এ নৌরুটে ১৭টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ ও ৪ শতাধিক স্পিডবোট দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ পারাপার হয়ে থাকে। এসব নৌযান বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগের কবলে পড়েছে যাত্রীরা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: