নির্বাচন কমিশনের আচরণ অটিস্টিকের মত: সোহেল

বর্তমান নির্বাচন কমিশন অটিস্টিকের মত আচরণ করছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল। তিনি বলেছেন, এই সরকার যে ‘গুণ্ডামির’ নির্বাচন করছে, স্বৈরাচার এরশাদের সময় আমরা এ ধরণের নির্বাচন দেখেছি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে স্বৈরাচার এরশাদের কায়দায় নির্বাচন চালু করেছে। এই নির্বাচন কমিশনের আচরণ পুরোপুরি অটিস্টিকের মত।

রবিবার (৪ অক্টোবর) রাজধানীর সায়াদাবাদ এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগকালে এক পথসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

দেশে নির্বাচনের নামে ‘তামাশা’ চলছে উল্লেখ করে সোহেল বলেন, আমরা কত অভিযোগ দিয়েছি কিন্তু উনারা চোখেও দেখে না, কানেও শোনে না। তারা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড এর অর্থ বুঝেন না। যারা তাদেরকে চেয়ারে বসিয়েছেন সেই সরকারি দলকে গুণ্ডামি, মাস্তানি ও ভোট ডাকাতি করতে দিয়েছেন। প্রশাসনও সেই রাস্তায় হাঁটছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা ওই নির্বাচন কমিশনকে বলতে চাই, আপনাদের বেতন দেয় জনগণ। জনগণের বেতন নিয়ে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করুন। তা না হলে বাংলাদেশের মানুষ মেনে নিবে না। সাংবিধানিক পদে বসে জনগণের সাংবিধানিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করার জন্য আজ হোক বা কাল হোক, আপনাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেছেন যত বাঁধা-বিপত্তি আসুক, আমরা নির্বাচনের শেষ দিন পর্যন্ত মাঠে থাকবো। আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ শরীরের সব রক্ত ঢেলে দিবেন কিন্তু নির্বাচনের মাঠ ছেড়ে আপনারা কেউ যাবেন না।

এ সময় ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ বলেন, এই নির্বাচন গণতন্ত্র রক্ষার নির্বাচন, এ নির্বাচন বেগম খালেদা জিয়ার নির্বাচন, এই নির্বাচন তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার নির্বাচন। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এখান থেকেই আন্দোলনের ডাক দিবো।

তিনি নির্বাচন কমিশনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, আপনারা সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেন। না হলে এদেশের জনগণ আপনাদের বিচার করবে।

এর আগে বেলা ১২ টায় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করে সায়দাবাদ, ধলপুর নতুন রাস্তা, গোলাপবাগ স্টেডিয়াম মার্কেট, সায়দাবাদ বাস টার্মিনাল, সায়দাবাদ জনপদ মোড় হয়ে ৪৮ ও ৪৯ নং ওয়ার্ড এর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে আবার যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এসে শেষ হয়।

গণসংযোগে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিন বিএনপির সহ-সভাপতি আতিকুল্লাহ আতিক, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, সহ-সাধারন সম্পাদক আকবর হোসেন ভূঁইয়া নান্টু, প্রচার সম্পাদক আব্দুল হাই পল্লব, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন সর্দার, ডেমরা থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিন শ্রমিকদলের সাধারন সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান ভাণ্ডারী, ডেমরা থানা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাসুম দেওয়ান, মোফাজ্জল হোসেন ভূঁইয়া, সহ-সম্পাদক হাফেজ মাহবুবসহ যাত্রাবাড়ী-ডেমরা থানা বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের শতাধিক নেতাকর্মী।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: