জনসংখ্যা কমলো সিঙ্গাপুরের

২০০৩ সালের পর এই প্রথমবারের মতো কমেছে সিঙ্গাপুরের জনসংখ্যা। সম্প্রতি করোনাভাইরাসের কারণে বিদেশি এবং অনেক স্থায়ী বাসিন্দা দেশ ছাড়েন। জনসংখ্যার হিসাবে এর প্রভাবই পড়েছে।

বার্ষিক জনসংখ্যা প্রতিবেদন অনুযায়ী, সিঙ্গাপুরে বসবাসরত মানুষের সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজার কমেছে। মোট জনসংখ্যা প্রায় ৫৭ লাখে দাঁড়িয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় দশমিক ৩ ভাগ কম। এর মধ্যে বিদেশিদের সংখ্যা ২ ভাগ কমে প্রায় সাড়ে ১৬ লাখ হয়েছে।

যদিও বিশ্বের নিম্ন জন্মহারের দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম সিঙ্গাপুরে বিদেশিরাই জনসংখ্যা বাড়াতে ভূমিকা রেখেছে। গত ২০ বছরে সেখানে বিদেশি জনসংখ্যা বাড়ে দ্বিগুণেরও বেশি।

এবার করোনার কারণে অর্থনৈতিকভাবে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে সিঙ্গাপুর। সরকারি হিসাবে চলতি বছর জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫ থেকে ৭ শতাংশ কমে যেতে পারে। এমন অবস্থায় বিদেশিরা দূরে থাক নিজেদের বাসিন্দাদেরই কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে হিমশিম খাচ্ছে দেশটির সরকার। স্থানীয়দের চাকরি নিশ্চিত করতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিদেশি নিয়োগে নানা কড়াকড়িও আরোপ করা হয়েছে৷ যদিও এ নিয়ে সরকারের মধ্যেই ভিন্নমত রয়েছে। কারণ, এর ফলে দীর্ঘমমেয়াদে ব্যবসা বাণিজ্যের আরও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা আছে।

চলতি মাসের শুরুতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লী সিয়েন লুং এক ভাষণেও বলেন, ‘‘আমরা সবকিছু বন্ধ করে দিচ্ছি আমাদের দেশে আর বিদেশিদের প্রয়োজন নেই, এমন ভুল ধারণা দেওয়া থেকে আমাদের অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে৷’’

সূত্র: রয়টার্স ও ব্যাংকক পোস্ট

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: