বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলংকা সফর স্থগিত

সব প্রস্তুতি বৃথা গেল। স্থগিত হয়ে গেল বাংলাদেশের শ্রীলংকা সফর। শ্রীলংকান গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন এসএলসির প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলভা।

এর কারণ হিসেবে পেপার ডটকমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে অ্যাশলে ডি সিলভা জানিয়েছেন, শ্রীলংকা সফরের শুরুতে কোয়ারেন্টিন শর্ত শিথিলে বিসিবির প্রস্তাবনা বিবেচনা করেনি দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। কোডিভ-১৯ ট্যাস্কফোর্সের বিধি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলংকা সফরে ভঙ্গ করা যাবে না বলে শ্রীলংকা ক্রিকেটকে স্পষ্ঠভাষায় জানিয়ে দিয়েছে।

সফর নিয়ে গত কয়েক দিন বেশ চিন্তিত ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শ্রীলংকা থেকে আসা একটি ইমেইলের অপেক্ষায় ছিল তারা।

আর সেই অপেক্ষা শেষ পর্যন্ত স্থগিতেই গিয়ে ঠেকল।

করোনাকালে এ সিরিজ খেলতে বিসিবি চেয়েছিল শ্রীলংকা সফরকালে ক্রিকেট দলের অনুশীলনে সহযোগিতা করার জন্য জাতীয় দলের সঙ্গে হাইপারফরম্যান্স স্কোয়াডের সফর।

বিসিবির এ প্রস্তাব শুরুতেই প্রত্যাখ্যান করে শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড জানায়, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বহর কোনোভাবেই ৩০ জনের বেশি হতে পারবে না এবং বাংলাদেশ দলকে শ্রীলংকা পা রেখে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

আর কোয়ারেন্টিন মেয়াদকালে ক্রিকেট দলের কেউ টিম হোটেলের বাইরে বের হতে পারবে না।

এমন সব কঠোর শর্ত মেনে নিতে চায়নি বিসিবি। কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ শিথিল না করলে এবং কোয়ারেন্টিনকালে অনুশীলনের সুযোগ না দিলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল শ্রীলংকা সফর করবে না বলে গত ১৪ সেপ্টেম্বর জানান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিসিবির এ অবস্থান জেনে কোভিড-১৯ ট্যাস্কফোর্সের সঙ্গে আলোচনায় বসে শর্ত শিথিলের অনুরোধ করে শ্রীলংকার ক্রীড়ামন্ত্রী। তবে কোভিড-১৯ ট্যাস্কফোর্স তাদের অবস্থান থেকে একচুলও নড়েনি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: