গাড়িচালক আব্দুল মালেকের ছাড় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই : সচিব

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গাড়িচালক আব্দুল মালেক এখনো কেন বরখাস্ত হচ্ছে না, এ ব্যাপারে মহাপরিচালকের কাছে জানতে চাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান।

তিনি বলেন, দুর্নীতি করে পার পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। যারাই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকুক, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে শক্ত অবস্থান নেবে।

সোমবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিবহন পুলের গাড়িচালক আব্দুল মালেক ওরফে বাদল ওরফে ড্রাইভার মালেককে বরখাস্ত করা হবে কিনা জানতে চাইলে স্বাস্থ্য সচিব বলেন, সার্ভিস রোলে যে বিধান আছে সে অনুয়ায়ী ডিজি বলেছেন, তিনি ব্যবস্থা নিচ্ছেন। দুদক আছে তারা দেখবে। তবে তার ছাড় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আরও যারা যারা এমন আছে তাদের বিষয়ে অনুসন্ধানের প্রক্রিয়া রয়েছে।

তিনি বলেন, গত কয়েক মাসে স্বাস্থ্য বিভাগে কোনো ধরনের অন্যায় অবিচার দুর্নীতির সঙ্গে যেই জড়িত, কাউকে ছাড় দিচ্ছি না। আমরা কাউকে ছাড়তে চাচ্ছি না। তবে সেই ড্রাইভারকে বরখাস্ত করার দায়িত্ব ডিজির। তাকে বরখাস্ত করতে আজকের দিন পার হওয়ার কথা না।

এদিকে, গাড়িচালক আব্দুল মালেককে দুই মামলায় ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এর আগে সোমবার আব্দুল মালেককে আদালতে হাজির করে তদন্ত কর্মকর্তা তুরাগ থানার এসআই রুবেল শেখ ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

রবিবার দিবাগত রাত সোয়া ৩টার দিকে রাজধানীর তুরাগ থানাধীন কামারপাড়া বামনের টেক ৪২ নম্বর হাজি কমপ্লেক্স ভবন থেকে আব্দুল মালেককে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১। এসময় তার কাছ থেকে বিদশি পিস্তল, ম্যাগজিন, পাঁচ রাউন্ড গুলি, দেড় লাখ টাকার জালনোট, ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী ড্রাইভার মালেকের ঢাকার বিভিন্ন স্থানে একাধিক বিলাসবহুল বাড়ি, গাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে বলে জানতে পেরেছে র‌্যাব।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: