ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফ সম্মেলন শুরু

ঢাকায় বিজিবি-বিএসএফের মহাপরিচালক (ডিজি) পর্যায়ের সীমান্ত সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক বৈঠক আজ বৃহস্পতিবার সকালে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে শুরু হয়েছে।

চার দিনব্যাপী সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক বৈঠক আজ সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজিবি কর্মকর্তারা।

সম্মেলনে যোগদানের জন্য ভারতীয় বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানার নেতৃত্বে ছয় সদস্যের প্রতিনিধিদল গতকাল বুধবার পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরে এসে পৌঁছান বলে জানিয়েছে বিজিবি।

বিজিবি ও বিএসএফপ্রধানের মধ্যে আজ শুরু হতে যাওয়া বৈঠকে সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার বিষয়টি প্রাধান্য পাবে। এ ছাড়া অস্ত্র ও মাদক পাচার বন্ধের বিষয়টিও প্রাধান্য পাবে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সীমান্ত হত্যা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বছর আগস্ট পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে ৩৩ বাংলাদেশি নিহত হয়েছে। এ ছাড়া বৈঠকে অবৈধ অস্ত্র, মাদক এবং মানব পাচার বন্ধের ব্যাপারেও আলোচনা হবে। উভয় দেশের সীমান্ত ব্যবস্থাপনা আরো উন্নয়নের জন্য বৈঠকে আলোচনা হবে।’

বিজিবির অপারেশন ডিরেক্টর লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান বলেন, ‘বৈঠকে সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়টি প্রাধান্য পাবে।’

বিজিবির অপারেশন ডিরেক্টর জানান, বৈঠকে উভয় দেশের পারস্পরিক স্বার্থের পাশাপাশি দুই সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক আরো উন্নয়নের উপায় নিয়ে আলোচনা হবে।

নয়াদিল্লি থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনে দেখা গেছে, বিএসএফের পক্ষ থেকে আলোচনায় গবাদি পশু পাচার, মুদ্রা ও মানব পাচার বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

এদিকে বিজিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সম্মেলনের যৌথ আলোচনার দলিল স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে সীমান্ত সম্মেলন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। সম্মেলন শেষে বিএসএফ প্রতিনিধিদল ঢাকা ত্যাগ করবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সম্মেলনে বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করবে। বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালকবৃন্দ ও বিজিবি সদর দপ্তরের সংশ্লিষ্ট স্টাফ অফিসারবৃন্দ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, যৌথ নদী কমিশন এবং ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করবেন।

ভারতীয় প্রতিনিধিদলে বিএসএফ সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং ভারতের স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন।

এদিকে গতকাল বুধবার বিজিবির হেলিকপ্টারে করে বিএসএফের মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা ঢাকার তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে পৌঁছালে বিজিবির ডিজি বিএসএফ ডিজিকে অভ্যর্থনা ও ফুল দিয়ে বরণ করে নেন এবং সেখান থেকে তাঁকে সঙ্গে নিয়ে পিলখানা বিজিবি সদর দপ্তরে আসেন।

এর আগে বিএসএফ মহাপরিচালকসহ ভারতীয় প্রতিনিধিদল সড়কপথে আখাউড়া আইসিপি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে সুলতানপুর ব্যাটালিয়নে যায়। পরে প্রতিনিধিদল সুলতানপুর ব্যাটালিয়ন থেকে বিজিবির হেলিকপ্টারে করে ঢাকার তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে পৌঁছে।

এর আগে গতকাল বুধবার দুপুর ১টার দিকে ভারতীয় প্রতিনিধিদল সড়কপথে আখাউড়া আইসিপি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করলে তাদের বিজিবি কর্মকর্তারা অভ্যর্থনা জানান।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: