Monday April12,2021

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা সালেহ আহম্মেদের মাথায় প্লাস্টিকের চেয়ার ছুড়ে মারার অভিযোগ উঠেছে শ্রমিক লীগ নেতার বিরুদ্ধে।

রোববার রাতে উপজেলার বামনী ইউপির বাংলাবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকে দুপক্ষের নেতাকর্মী এবং স্বজনদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আহত ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি সালেহ আহম্মেদকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন জুয়েল মৃধা সাবেক পৌর শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক ও বামনী ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, সামনে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির একাধিক প্রার্থী চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদে প্রার্থী হবেন ও হচ্ছেন। রোববার এশার নামাজের আগে বাংলাবাজার একটি চা দোকানের সামনে ইউপি নির্বাচনে কোন ওয়ার্ডে কারা কারা প্রার্থী ও কেমন লোক আসবে এ নিয়ে সালেহ আহম্মেদ ও জুয়েল মৃধার সঙ্গে কথাকাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে জুয়েল মৃধা উত্তেজিত হয়ে সালেহ আহম্মেদের ওপর প্লাস্টিকের চেয়ার দিয়ে হামলা চালায়। এতে তিনি মারাত্মক আহত হন। তাকে উদ্ধার করে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। জুয়েল মৃধাও প্রাইভেট ক্লিনিকেও চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ ঘটনা জানতে চাইলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সালেহ আহম্মেদ ও সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা জুয়েল মৃধা পরস্পরবিরোধী বক্তব্য দিয়েছেন।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, বিএনপি নেতা সালেহ আহম্মেদ ও শ্রমিক লীগ নেতা জুয়েল মৃধা উভয়ই বিচার দাবি করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তা গ্রহণ করা হয়েছে এবং তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।