রাহুলের পরামর্শে কংগ্রেসকে ঢেলে সাজালেন সোনিয়া গান্ধী

সংগঠনে গতি আনতে কংগ্রেসকে ঢেলে সাজালেন সোনিয়া গান্ধী। দলকে চাঙ্গা করতে নতুন কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি তৈরি করছেন তিনি।

নতুন এআইসিসির সাধারণ সম্পাদক নিয়োগ করলেন বিভিন্ন রাজ্যের দায়িত্বে। সর্বোপরি দল পরিচালনার কাজে তাকে সাহায্য করার জন্য ছয় সদস্যের একটি বিশেষ কমিটি গঠন করছেন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

রাহুল গান্ধীর পরামর্শকে প্রাধান্য দেয়ার বার্তা দিয়ে ওই ছয় সদস্যের কমিটিতে আহমেদ পটেল, এ কে অ্যান্টনি ও অম্বিকা সোনির মতো সোনিয়ার পুরনো আস্থাভাজনদের সঙ্গে জায়গা দেয়া হলো রাহুলের দুই আস্থাভাজন কে সি বেণুগোপাল ও রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালাকে।

নতুন সভাপতি নির্বাচন করা পর্যন্ত এই কমিটি সোনিয়াকে সাহায্য করবে। আগামী দিনে সাংগঠনিক নির্বাচন ও সদস্য সংগ্রহ অভিযানের ইঙ্গিত দিয়ে মধুসূদন মিস্ত্রির নেতৃত্বে দলের নতুন কেন্দ্রীয় নির্বাচন কর্তৃপক্ষও গঠন করেছেন সোনিয়া।

কংগ্রেসের সাঙগঠনিক দুরবস্থা নিয়ে ক্ষোভ জানিয়ে ২৩ জন ‘বিক্ষুব্ধ’ নেতা সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখেছিলেন। সেই চিঠি সংবাদমাধ্যমেও ফাঁস হয়।

বিক্ষুব্ধদের বার্তা দিয়ে ২৩ জনের অন্যতম গুলাম নবি আজাদকে এআইসিসির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। আজাদ হরিয়ানার দায়িত্বে ছিলেন। তাকে অবশ্য ওয়ার্কিং কমিটি থেকে বাদ দেয়া হয়নি।

বিক্ষুব্ধদের মধ্যে তরুণ নেতা জিতিন প্রসাদকে কংগ্রেসের কাছে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ পশ্চিমবঙ্গ ও আন্দামান নিকোবরের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এত দিন গৌরব গগৈ বাংলার দায়িত্বে ছিলেন।

রাহুলের আস্থাভাজন গগৈকে আগেই লোকসভায় দলনেতা অধীর চৌধুরীকে সাহায্যের জন্য উপ-দলনেতার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।

রাজস্থানে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌতের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেও দলে থেকে যাওয়া সচিন পাইলটের আপাতত এআইসিসিতে জায়গা মিলেনি। রাজস্থানে উপ-মুখ্যমন্ত্রী ও প্রদেশ সভাপতির পদ তিনি আগেই খুইয়েছিলেন। এখন এইআইসিসিতেও কোন দায়িত্ব মিলল না।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: