Thursday January28,2021

বরেণ্য অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকাল সোয়া ৬টার দিকে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার তাকে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়েছিল। তার জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ছিল।

মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন কে এস ফিরোজের মেয়ে রাবিয়া হাজান ফিরোজ। পারিবারিক সূত্র জানায়, বাদ জোহর জানাজার পর বনানী সামরিক করস্থানে তাকে সমাহিত হরা হবে।

তার মৃত্যুর খবরটি জানিয়ে নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘আমার অনেক নাটকেই এ গুণী শিল্পী অভিনয় করেছেন। সকাল বেলাই এমন দুঃসংবাদ মেনে নিতে পারছি না।’

মঞ্চনাটকের মাধ্যমে অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করেন কে এস ফিরোজ। নাট্যদল ‘থিয়েটার’-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। টিভি নাটকের পাশাপাশি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন। তার প্রথম সিনেমা ‘লাওয়ারিশ’। এছাড়া তার উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে— ‘শঙ্খনাদ’, ‘বাঁশি’, ‘চন্দ্রগ্রহণ’, ‘বৃহন্নলা’।

মৃত্যুকালে কেএস ফিরোজ স্ত্রী ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

কে এস ফিরোজের জন্ম বরিশাল জেলায়। অভিনয় জগতে আসার আগে এ অভিনেতা ১৯৬৭ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশন পদে চাকরি পান। ১৯৭৭ সালে মেজর পদে চাকরি থেকে অব্যাহতি নেন।