যাত্রীর আড়াই লাখ টাকা ও মোবাইল ফিরিয়ে দিলেন রিকশাচালক

বাড়িতে নুন আনতে পান্তা ফুরায় রিকশাচালক নাজমুলের। তবুও সততার পথ থেকে সরতে নারাজ এই তরুণ রিকশাচালক। প্রায় আড়াই লাখ টাকা ও একটি দামি মোবাইল ফোন হাতে পেয়েও ফিরিয়ে দিলেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার বিকালে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারে। রিকশাচালক নাজমুল হোসেন ৩নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের মধ্যসমত গ্রামের ঠেলাচালক রিফন মিয়ার ছেলে। টাকার মালিক উপজেলার কাজীগঞ্জ বাজারের কুড়েরপাড়ের বাসিন্দা সুলতান আহমদ।

জানা যায়, ইনাতগঞ্জ বাজার থেকে জনৈক যাত্রীকে নিয়ে কাজির বাজারে নামিয়ে দেন নাজমুল। ফিরে আসার পথে তার রিকশার সিটে পড়ে থাকা একটা শপিং ব্যাগ দেখতে পান নাজমুল। ব্যাগটি খুলে টাকা ও দামি মোবাইল ফোন দেখতে পেয়ে হতভম্ব হয়ে যান তিনি।

তাৎক্ষণিক তিনি আরেকজনের সহায়তা নিয়ে মোবাইল ফোনের সূত্রে ব্যাগের মালিককে ফোন দেন তিনি। টাকার মালিক ফোন পেয়ে দ্রুত আরও দুজন ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে ইনাতগঞ্জ বাজারে আসেন। পরে মোবাইল ও দুই লাখ সাতচল্লিশ হাজার টাকাসহ ব্যাগ মালিককে ফেরত দেয়া হয়।

এ সময় ব্যাগের মালিক অনেকের উপস্থিতিতে নিজ টাকা বুঝে পেয়ে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানান। এ সময় তিনি রিকশাচালককে জোর করে ২ হাজার ৫শ’ টাকা এবং একটি মোবাইল ফোন উপহার দেন।

রিকশাচালক নাজমুল হোসেন বলেন, নিজে কষ্ট করে রোজগার করে খাব তবুও অন্যের সম্পত্তি বা টাকার লোভলালসা নেই আমার। আমি যেভাবে জীবনযাপন করছি এতেই আল্লাহর কাছে শুকরিয়া। রিকশায় ফেলে যাওয়া টাকাগুলো মালিককে ফেরত দিতে পেরে আমি অনেক খুশি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: