ভারত মহাসাগরে তেলের জাহাজে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

ভারত মহাসাগরে একটি তেলবাহী জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বিপুল পরিমাণ অপরিশোধিত তেল এবং ডিজেল রয়েছে ওই ট্যাংকারে। খবর ডয়চে ভেলে’র।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দুই লাখ ৭০ হাজার টন অপরিশোধিত তেল এবং এক হাজার ৭০০ টন ডিজেল নিয়ে কুয়েত থেকে রওনা হয়েছিল নিউ ডায়মন্ড ট্যাংকার নামে জাহাজটি। ভারতের পারাদ্বীপে যাওয়ার পথে বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কা বন্দরের কাছে হঠাৎ আগুন লেগে যায় জাহাজটিতে। তবে শ্রীলঙ্কা এবং ভারতের নৌসেনাদের প্রচেষ্টায় জাহাজটির আগুন আপাতত নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে বলে জানা গেছে।

ট্যাংকারটিতে ২৩ জন কর্মী ছিলেন, যার মধ্যে ১৮ জন ফিলিপিনো এবং ৫ জন গ্রিক। আগুন নেভাতে গিয়ে দুজন কর্মী আহত হন বলে জানা গেছে। তার মধ্যে একজন এখনও নিখোঁজ। বাকিদের পানামার ফ্ল্যাগ লাগানো একটি জাহাজ প্রাথমিকভাবে উদ্ধার করে।

এরপরই শ্রীলঙ্কার নৌ বাহিনীর ছোট ছোট নৌকা জাহাজের সামনে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তারা জানিয়েছে, আপাতত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে। তবে এখনও তেল লিক হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

শ্রীলঙ্কার নৌসেনার বক্তব্য, তেল লিক হলে তা মোকাবিলা করার মতো ব্যবস্থা তাদের নেই। ভারত এর মধ্যেই নৌ বাহিনীর একটি জাহাজ পাঠিয়েছে। আরও দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ পাঠানো হয়েছে। তেল লিক হলে ভারতীয় নৌ সেনারা সেটি মোকাবিলা করবে বলে জানা গেছে।

কিছুদিন আগেই জাপানের একটি ট্যাংকার থেকে তেল লিক করেছিল মরিশাসের কোরাল রিফে। ওই ঘটনায় কয়েক হাজার টন তেল পানিতে মিশে গেলে প্রকৃতির ভয়াবহ ক্ষতি হয়েছিল। শ্রীলঙ্কার নৌ সেনারা জানিয়েছে, ফের যাতে ওই ধরনের ঘটনা না ঘটে, তার দিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে। সূত্র: মেট্রো, রয়টার্স।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: