Monday January25,2021

বেশ কিছুদিন ধরেই প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ও সাইফকন্যা সারা আলী খানের ব্যাংকক ট্রিপ নিয়ে চর্চা চলছে। সেই ট্রিপ নিয়ে কিছু দিন আগেই সংবাদমাধ্যমে মুখ খুলেছিলেন সুশান্তের বন্ধু সাবির আহমেদ। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের শেষের দিকে ওই ট্রিপে সুশান্তের সঙ্গে ছিলেন তার ‘প্রাক্তন প্রেমিকা’ সারা আলী খানও।

বিশেষ একটি সূত্রে জানা যায়, শুধুমাত্র সারার জন্যই নাকি ওই বিলাসবহুল ট্রিপে একটি চার্টাড প্লেন বুক করেছিলেন সুশান্ত। সারা চেয়েছিলেন, তাদের এই ট্রিপের কথা ‘গোপনীয়’ রাখতে। আর সারাকে খুশি করতেই নাকি পয়সার তোয়াক্কা করেননি সুশান্ত। খরচ করেছেন মুক্ত হস্তে।

এর আগে রিয়া জানিয়েছিলেন, ওই ট্রিপে নাকি সুশান্ত আনুমানিক ৭০ লক্ষ টাকা খরচ করেছিলেন। যদিও রিয়া বলেছিলেন সেটি ‘বয়েজ ট্রিপ’ ছিল। সুশান্ত এবং তার পুরুষ বন্ধুরাই শুধু গিয়েছিলেন। যদিও সুশান্তের সহযোগী এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধু সাবির সংবাদমাধ্যমের কাছে কিছু দিন আগেই সারার যাওয়ার কথা জানান।

তিনি বলেন, সুশান্ত-সারা ছাড়াও ওই ট্রিপে ছিলেন কুশাল জাভেরি, সিদ্ধার্থ গুপ্ত, আব্বাস, মুস্তাক এবং সাবির নিজে।

সাবিরের দাবি, ব্যাংকক পৌঁছে প্রথম দিন সবাই মিলে বিচে ঘুরলেও এর পরে কার্যত নিজেদের হোটেলবন্দি করে নেন সারা ও সুশান্ত। কিন্তু সেটা কেন? লোক জানাজানির ভয়? নাকি অন্য কিছু? তা অবশ্য জানাননি সাবির।

বিশেষ সূত্র থেকে এ-ও জানা যায়, ট্রিপের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই ব্যাংককে সুনামি সতর্কতা জারি হওয়ায় দেশে ফিরে আসেন সারা-সুশান্ত। বিমানবন্দরে সারাকে নিতে আসেন সুশান্তের বন্ধু স্যামুয়েল।