আফগানিস্তানে বন্যায় মৃত্যু বেড়ে ১৫০

আকস্মিক বন্যায় আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের উত্তরে পারওয়ান প্রদেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫০ জনে দাঁড়িয়েছে।

গতকাল বুধবার (২৭ আগস্ট) ভোরের দিকে কাবুল সীমান্তবর্তী পারওয়ান প্রদেশে এ ভয়াবহ বন্যা শুরু হয়। বহু নারী-পুরুষ ও শিশু বন্যার পানির প্রবল স্রোতের মুখে পড়েন।

বন্যার তোড়ে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ৯০০ পরিবারকে দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছে। বন্যায় দেড় হাজার বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এছাড়া ২৫০ জন আহত হয়েছেন। প্রবল বৃষ্টি থেকে এই বন্যা শুরু হয়।

এখনও বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তামিম আজিমি, ‘আমরা আশংকা করছি যে, অনেকেই এখনও পাথর ও কাদার মধ্যে চাপা পড়ে আছে।’

তিনি বলেন, বন্যায় ক্ষয়ক্ষতির মাত্রা অনেক বেশি এবং পরিস্থিতি জটিল।

আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা, সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ লোকজন নিখোঁজ ব্যক্তিদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। তবে রাস্তা-ঘাট কাদা, মাটি ও পাথরে চাপা পড়ার কারণে উদ্ধার অভিযান বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: