স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস পরিচালনার গাইডলাইন দেবে মাউশি

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস পরিচালনার একটি গাইডলাইন তৈরির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

জানা গেছে, ক্লাসে দূরত্ব রেখে শিক্ষার্থীদের বসানো হবে। প্রতিদিন এক সঙ্গে সব শ্রেণির ক্লাস নেওয়া হবে না। কয়েকটি ভাগে ভাগ করে বিভিন্ন স্তরে ক্লাস নেওয়া হবে। এ ক্ষেত্রে মৌলিক বিষয়গুলোকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে সপ্তাহে একটি শ্রেণির শিক্ষার্থীদের দুই অথবা তিনদিন ক্লাস নেওয়া হবে। সপ্তম ও দ্বাদশ শ্রেণিকে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার পাশাপাশি পরীক্ষা কমাতে শ্রেণি শিক্ষকদের মাধ্যমে ক্লাস মূল্যায়ন বাড়ানো হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ, সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে একটি গাইডলাইন তৈরি করা হবে। সেটি অনুযায়ী শ্রেণি কার্যক্রম চলবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা এটি নিয়ে কাজ করছি। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা আমাদের অনেক আগে থেকেই রয়েছে। সেটি অনুযায়ী এখন প্রতিষ্ঠান পরিচালনার একটি গাইডলাইন করে দেওয়া হবে। আর এক্ষেত্রে অবশ্যই বেশি গুরুত্ব পাবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ প্রতিষ্ঠানের সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষা।

প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে তিনি বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে। তবে এখনো তেমন কোনো পরিস্থিতি দেখা যাচ্ছে না। আর এইচএসসি পরীক্ষাও নির্ভর করছে প্রতিষ্ঠান খোলার ওপর।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম আল হোসেন বলেন, এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা খুব কম। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে শিক্ষার্থীদের ঝুঁকিতে ফেলা হবে না। অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: