ভারতে পাঁচতলা ভবন ধসে নিহত ১, আটকা পড়েছেন অনেকে

ভারতের মহারাষ্ট্রে তারিক গার্ডেন নামে একটি পাঁচতলা ভবন ধসে একজন নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

রাজ্যের রায়গড় শহরে সোমবার ওই ধসে পড়া ভবনটিতে ৪৫টির বেশি ফ্ল্যাট ছিল। ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনও অন্তত ৭০ জন আটকা রয়েছেন বলে আশঙ্কা করছেন উদ্ধার কর্মীরা। খবর এনডিটিভির।

ভারতের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানায়, বিশেষায়িত সরঞ্জাম এবং প্রশিক্ষিত কুকুর নিয়ে দুর্ঘটনাস্থলে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে তিনটি দল।

মহারাষ্ট্রের রাজধানী মুম্বাই থেকে প্রায় ১২০ কিলোমিটার দক্ষিণে মাহাদ জেলার রায়গড় শহরে ওই ভবন ধসের ঘটনা ঘটে।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে আকস্মিকভাবে তারিক গার্ডেন নামে ভবনটি ধসে পড়ে। দুর্ঘটনার কয়েকটি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ভবনটি ধসে পড়লে ওই এলাকায় বিশাল ধুলার মেঘ তৈরি হয়।

স্থানীয় জেলা কালেক্টর নিধি চৌধুরী জানান, প্রথমে ১০ বছরের পুরনো ভবনটির ওপরের তিন তলা ধসে পড়ে। তখন অল্প কয়েকজন মানুষ দৌড়ে বের হয়ে আসতে সক্ষম হয়। সেখান থেকে ১৫ জনের মতো মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। আহতদের সরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় এমপি কংগ্রেস নেতা সুনিল তাতকারে জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে কমিটি গঠন করা হচ্ছে।

এদিকে এই ভবন ধসের ঘটনাকে ইতিমধ্যে বিপর্যয় বলে আখ্যা দিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত মাসেই মুম্বাইতে ভারী বর্ষণে অপর একটি বহুতল ভবন ধসে অন্তত ৯ জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: