Advertisements

১৩ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার সুমন লঞ্চের ইঞ্জিনে আটকে ছিলেন, এখন ভালো আছেন

রাজধানীর বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় ১৩ ঘণ্টা পর ভাসমান অবস্থায় জীবিত উদ্ধার হওয়া সুমন বেপারী (৩৭) ভালো আছেন। তাকে জরুরি বিভাগ থেকে মেডিসিন বিভাগে নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকালে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা হয় মিটফোর্ড হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. রাশীদ উন নবীর সঙ্গে।

তিনি বলেন, সুমন বেপারী এখন অনেক ভালো আছেন। তাকে জরুরি বিভাগ থেকে মেডিসিন ওয়ার্ডে নেওয়া হয়েছে। তিনি মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন। কথাবার্তা বলছেন। সুমন বেপারীর ভাতিজা আরাফাত রায়হান সাকিব সাংবাদিকদের জানান, দুর্ঘটনার সময় চাচা সুমন বেপারী লঞ্চে সবার সঙ্গে কথা বলছিল। একপর্যায়ে দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে তিনি কিভাবে যেনো লঞ্চের ইঞ্জিনের ভেতরে চলে যান। সেখানেই আটকে ছিলেন বলে আমাদের জানিয়েছেন। চাচা এখন ভালো আছেন।

এদিকে, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে লঞ্চডুবির ঘটনায় নিখোঁজদের সন্ধানে ফের উদ্ধার কাজ শুরু করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, লঞ্চডুবির ঘটনায় নিখোঁজদের সন্ধানে ফের উদ্ধার কাজ শুরু করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল। দিনভর এ উদ্ধার কাজ চলবে।

এআগে সোমবার (২৯ জুন) মুন্সিগঞ্জ কাঠপট্টি থেকে প্রায় ৫০ জন যাত্রী নিয়ে লঞ্চটি ঢাকায় আসছিল। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ফরাশগঞ্জ ঘাট সংলগ্ন কুমিল্লা ডক এরিয়ায় ময়ূর-২ লঞ্চ পেছনের দিকে ধাক্কা দিলে মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। সোমবার রাত ৮টা পর্যন্ত পুরুষ, নারী ও শিশুসহ ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

Advertisements

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: