Advertisements

মাস্ক জীবাণুমুক্ত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ

মাস্ক জীবাণুমুক্ত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে হাত ধোয়ার পাশাপাশি নিরাপদে থাকতে কার্যকর ব্যবস্থা হচ্ছে নাক-মুখ ঢেকে রাখা, তাই মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। মাস্ক ব্যবহারের পর অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে। অপরিষ্কার মাস্ক পরলে আক্রান্ত হতে পারেন করোনাসহ বিভিন্ন রোগে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) পরিবর্তিত নির্দেশিকায় মাস্ক পরার নির্দেশ দিয়েছে। আর ব্যবহার করা মাস্ক জীবাণুমুক্ত করতে পরামর্শ দিয়েছে।
গেঞ্জির কাপড়ের মাস্ক ব্যবহার সবচেয়ে ভালো। যেভাবে মাস্ক জীবাণুমুক্ত করবেন-

১. ঘরে ফিরে দড়ি, ফিতে বা রাবার ব্যান্ডের অংশ ধরে মাস্ক খুলতে হবে। সরাসরি মাস্কে হাত দেয়া যাবে না। সাবানপানিতে ভিজিয়ে ধুয়ে নিন। রোদে শুকাতে দিন, তাতে মাস্ক জীবাণুমুক্ত হবে।

২. গরম পানি ও লবণ দিয়ে মাস্ক ফুটিয়ে নিতে পারেন। এর পর রোদে শুকাতে দিন। শুকিয়ে যাওয়ার পর ইস্ত্রি করুন।

৩. ভেজা মাস্ক পরবেন না। এতে সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।

৪. ধুতে না চাইলে সার্জিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করুন। এই মাস্ক একবার ব্যবহারের পর ফেলে দিতে হয়।

৫. বাইরে গেলে দুটি মাস্ক ব্যাগে রাখুন। মুখে বাঁধা মাস্ক কোনো কারণে নষ্ট হলে বা ভিজে গেলে অন্যটি ব্যবহার করুন।

Advertisements

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: