Advertisements

করোনা প্রতিরোধে যেসব বদভ্যাস ত্যাগ করা উচিৎ: ডা. শাহাদাত

সম্প্রতি চট্টগ্রাম হয়ে উঠেছে করোনা হটস্পট। এই দুর্যোগের মাঝেও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি সভাপতি ও স্পোর্টস মেডিসিন স্পেশালিস্ট ডাঃশাহাদাত হোসেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুক লাইভে-এ টেলিমেডিসিন সেবার মাধ্যমে জনগণের মধ্যে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এই রমজান মাসেও তার নিজস্ব ফেইসবুক পেইজ
(https://www.facebook.com/DrShahadatBNP/) থেকে তিনি এই সেবা চালিয়ে  যাবেন রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতি বার রাত ১০টা থেক ১১.৩০ পর্যন্ত। সাম্প্রতিকসময়ে এক লাইভ সেশনে তিনি দর্শকদের কিছু করোনা প্রতিরোধে কিছু বদভ্যাস ত্যাগ করার পরামর্শ দেন।

প্রথমেই তিনি ঘুমের উপর আলোকপাত করেন। তিনি বলেন,যথেষ্ট ঘুম না হলে ক্লান্ত শরীরে ভাইরাস সহজেই আক্রমন করতে পারে। তাছাড়া সংক্রমণ হলে তা
থেকে সেরে উঠতে সময় লাগবে বেশী। কারন ঘুম কম হলে দেহের প্রতিরোধকারী হোয়াইট ব্লাড সেল  ঠিক মত এন্টিবডি উৎপন্ন হতে পারেনা। ঘুমের সময় শরীর উৎপন্ন করে কিছু প্রোটিন, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে সাহায্য করে। সুতরাং
যথেষ্ট ঘুম হওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। একই কারণে, তিনি উদ্বেগ উৎকণ্ঠা থেকেও দূরে থাকতে বলেন। দুশ্চিন্তা গভীর হলে মাত্র ৩০ মিনিটে ইমিউন প্রতিক্রিয়া দুর্বল হয়ে যায়। অবিরাম মানসিক চাপ আরও বড় সমস্যা। তাই দুশ্চিন্তা কমাতে হবে। এ ক্ষেত্রে নামাজ, মেডিটেশন, বা মনোরগ বিশেষজ্ঞের সাহায্য নেওয়া যেতে পারে।

লকডাউনের কারণে বাইরে বের হতে না পারার কারণে অনেকের ব্যায়াম করা থেকে বিরত আছেন।এটা হতে দেয়া যাবেনা। ব্যায়াম করে সুস্থ সবল শরীর তৈরি করে রাখতে
হবে যাতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এ ক্ষেত্রে বাসায় হালকা ব্যায়াম করা যেতে পারে। বেশী বেশী নামাজ পড়াও একটি কার্যকর ব্যায়াম। সাথে আমাদের বারান্দায় গিয়ে শরীরে রোদ লাগানোও উচিৎ। রোদ ভিটামিন ডি তৈরি করতে
সাহায্য করে যা দরকার সুস্থ রক্ত-কনিকার জন্য, যা আমাদের ইমিউন সিস্টেম সবল করে। এ ভিটামিন পাওয়া যাবে পাওয়া যাবে ডিম ও তৈলাক্ত মাছও। লেবুর রস ও টক খাবারে ভিটামিন সি পাওয়া যায় যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে
উপকারী।এছাড়াও তাজা সবজি, বীজ বাদাম থেকে আসে জিঙ্ক, বিটা ক্যারোটিন,ভিটামিন এ, সি, ই। উদ্ভিজ্জ খাবার আশে ভর্তি, যা মেদ কমাতে সহায়ক। ফল,শাক-সবজি খেলে সবল হয় দেহ প্রতি রোধ।তবে তৈলাক্ত খাবার জীবাণু রোধী কোষ শ্বেত-কণিকার (হোয়াইট ব্লাড সেল)
কার্যকারিতা রোধ করে। তাই ভাজা পোড়া খাবার বাদ দিতে হবে। চিনিও কমানো
উচিৎ আমাদের ডায়েটে।

Advertisements

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: