Advertisements

করোনা ঠেকাতে ভারতে কারফিউ!

করোনা ঠেকাতে আজ সোমবার (১৮ মে) থেকে ভারতে শুরু হয়েছে চতুর্থ দফার লকডাউন। চতুর্থ দফায় লকডাউন শেষ হবে ৩১ মে। এ দফার লকডাউনে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। তবে চতুর্থ দফার লকডাউনে সবচেয়ে বড় ঘোষণা হলো, দেশজুড়ে সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, রোববার রাত ৯টার দিকে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ সচিব রাজীব গৌবা বিভিন্ন রাজ্যের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এক বৈঠকের পর কারফিউর বিষয়টি জানিয়ে দেন। কারফিউর ফলে সন্ধ্যা ৭টার পর কেউ বাড়ি থেকে বের হতে পারবে না। সন্ধ্যায় সবধরণের পরিবহণ ব্যবস্থা থেকে দোকানপাট বন্ধ হয়ে যাবে। সন্ধ্যার পর থেকে কারফিউর ঘোষণা দেয়া হলেও দিনের অন্য সময়ে কিছু ক্ষেত্রে লকডাউন শিথিলতা থাকবে। তবে স্থানীয় প্রশাসন প্রয়োজনে ১৪৪ ধারা জারি করতে পারবে।

চতুর্থ দফার এই লকডউনে বিমান, ট্রেন ও মেট্টো চলাচল বন্ধ থাকবে । তবে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিক, পর্যটক, রোগী, তীর্থযাত্রীদের নিয়ে আসার জন্য শ্রমিক ট্রেন ও বিশেষ ট্রেন চলবে। এসময় বিভিন্ন রাজ্যে পরিবহন ব্যবস্থা চালু করার কথাও বলা হয়। একই সঙ্গে আন্তজেলা ও আন্তরাজ্য দূরপাল্লার বাস চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে বলা হয়, এসব ব্যাপারে নিজ নিজ রাজ্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

৬৫ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তি, গর্ভবতী নারী ও ১০ বছরের নিচের শিশুদের লকডাউনের মধ্যে বাড়ি থেকে একদম বের না হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। লকডাউনের সময় বিয়ের অনুষ্ঠানে মাত্র ৫০ জন যোগ দিতে পারবে। অন্ত্যেস্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে পারবে ২০ জন। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এসব পালন করতে হবে। তবে বন্ধ থাকবে স্কুলসহ সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয়, হোটেল, রেস্তোরাঁ, শপিংমল, সিনেমা, থিয়েটার, বার, সুইমিংপুল, বিনোদন পার্ক, স্টেডিয়াম ইত্যাদি।

Advertisements

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

%d bloggers like this: