Sunday April11,2021

ক্ষুধার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা ইউনিয়নের ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা রাজপথে নেমে বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে প্রথমে ফতুল্লা মডেল থানার সামনে অবস্থান নেয়। পরে বিক্ষোভ-মিছিল নিয়ে ফতুল্লা চৌধুরী বাড়িস্থ ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপনের বাড়ির সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন।

বুধবার ফতুল্লা ইউনিয়নের ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা রাজপথে নেমে বিক্ষোভ করে।

এসময় বিক্ষোভকারী প্রায় ১ ঘণ্টা চেয়ারম্যানের বাড়ি ঘেরাও করে রাখেন।

বিক্ষোভে অংশ নেয়া হামিদা খাতুন বলেন, করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে আমরা নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করছি। কোনো কাজ করতে পারছি না।

এদিকে আমাদের ঘরের খাবার শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আমাদের কোনো খোঁজ রাখছেন না। তাই আমরা ক্ষুধার যন্ত্রণায় রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছি।

সাহারা সিটি এলাকার সালেহা বলেন, আমরা ঘরে বসে থেকে খাদ্য পাই না, কিন্তু যারা ঘর ছেড়ে রাস্তায় ঘুরে তারা ঠিকই ত্রাণ পাচ্ছে।

বিক্ষোভ অংশ নেয়া আব্দুস সালাম বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আমার কাজ বন্ধ।আমি পরিবার নিয়ে খাদ্য সংকটে রয়েছি। কিন্তু স্থানীয় মেম্বার কিংবা চেয়ারম্যান আমাদের কোনো খোঁজ রাখছে না। আর এ কারণেই আজ বাধ্য হয়ে রাস্তায় নামলাম।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন জানান, মানুষ ক্ষুধার জ্বালায় জনপ্রতিনিধির বাড়ি ঘেরাও করবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্ত আমি যদি প্রয়োজনীয় ত্রাণ না পাই কোথা থেকে দেব।