Sunday April11,2021

স্বাধীন বাংলাদেশের অন্যতম স্বপ্নদ্রষ্টা স্বাধীন বাংলা বিপ্লবী পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক জাতীয় বীর কাজী আরেফ আহমেদের আজ ৭৮তম জন্মবার্যিকী। ১৯৪২ সালের ৮ই এপ্রিল তিনি জন্মগ্রহন করেন।ছাত্রজীবন থেকেই তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতার লক্ষে দৃঢ়তার সাথে সংগ্রাম করেছেন। স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরে তিনজন ছাত্রনেতা মিলে ১৯৬২ সালে গঠন করেন স্বাধীন বাংলা বিপ্লবী পরিষদ, যা স্বাধীনতার নিউক্লিয়াস নামে খ্যাত, কাজী আরেফ আহমেদ ছিলেন তার একজন৷ তিনি আজীবন লড়াই করেছেন শ্রেনিবৈষম্যেহীন শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য৷ তিনি বিশ্বাস করতেন সামরিক ছত্রছায়ায় গড়ে ওঠা রাজনৈতিক দল কখনোই গণতন্ত্রী হতে পারে না৷ তাই তিনি আন্দোলন করেছেন সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে৷ জেনারেল জিয়ার সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করেছেন, সংগ্রাম করেছেন এরসাদের সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে৷ এজন্য এরশাদের শাসনামলে কারাবারণও করেছেন৷ কাজী আরেফ ১৯৯২তে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবীতে গঠিত গনআদালতের পুরধা ছিলেন। তিনি যেমন ১৯৬২ থেকে ১৯৭১পর্যন্ত বাংলাদেশ রাষ্ট্র নির্মানে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন, তেমনি ১৯৭২ থেকে ১৯৯৯ পর্যন্ত অসাম্প্রদায়িক শোষনমুক্ত সাম্যের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষে লড়াই করেন৷ ১৯৯৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্ত্রাস বিরোধী জনসভা মঞ্চে তিনি আততায়ীর গুলিতে নিহত হন৷
মহান এই নেতার জন্মদিনে তার রাজনৈতিক দর্শন অনুসারীদের প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হতে হবে অসাম্প্রদায়িক যুদ্ধাপরাধীমুক্ত জঙ্গীমুক্ত শোষনহীন সাম্যের বংলাদেশ প্রতিষ্ঠার৷ তাহলেই এই মহান নেতা কাজী আরেফকে শ্রদ্ধা জানানো হবে। লাল সালাম কাজী আরেফ।

কাজী সালমা সুলতানা

লেখক এবং রাজনৈতিক বিশ্লেষক