Sunday April11,2021

করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনে থাকা যুবক তিনতলা থেকে লাফিয়ে পড়ে পালাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটা যে মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ ছিল না তা বুঝেছেন একটু পরেই। পালাতে তো পারেননি, বরং হাসপাতালে ফিরতে হয়েছে ভাঙা দুই পা নিয়ে। শনিবার (৪ এপ্রিল) এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের দিল্লির লোক নায়ক জয়প্রকাশ হাসপাতালে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আউটলুক ইন্ডিয়া জানায়, ৩৭ বছর বয়সী ওই যুবক শহরের মাতা সুন্দরী রোডের একটি ফ্ল্যাটে থাকেন। গত ৩১ মার্চ করোনা আক্রান্ত সন্দেহে তাকে দিল্লির কেন্দ্রীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। পরে ফলাফল আসতে দেরি হওয়ায় জয়প্রকাশ হাসপাতালে তাকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।

দিল্লি পুলিশের (সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট) ডেপুটি কমিশনার সঞ্জয় ভাটিয়া জানান, স্থানীয় সময় শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই যুবক আচমকা হাসপাতালের তিনতলা থেকে লাফিয়ে পড়েন। কিন্তু সোজা মাটিতে না পড়ে পাশের একটি ঘরের টিনের চালের ওপর পড়েন তিনি। এতে কোনোমতে প্রাণ বেঁচে গেলেও দু’টো পা-ই ভেঙে গেছে তার। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আহত যুবকের অবস্থা স্থিতিশীল। তার করোনা টেস্টের ফলাফল এখনও আসেনি।