Wednesday April14,2021

বিশ্বজুড়ে এখন আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। জ্বর-সর্দি-কাশি এই ভাইরাসের প্রধান উপসর্গ। ফলে এসব উপসর্গ নিয়ে সবাই সতর্ক বিশ্বব্যাপী।

করোনাভাইরাসের এই আতঙ্কের মধ্যে কাশি দিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন এক নারী।

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ার লজার্নে কাউন্টির ঘটনা এটি। সেখানকার একটি সুপার মার্কেটে খাবারের জায়গায় দাঁড়িয়ে কাশি দিয়েছিলেন ওই নারী। তার কাশির শব্দ শুনে সঙ্গে সঙ্গেই মজুত খাবারগুলো ফেলে দিয়েছে সুপারমার্কেট কর্তৃপক্ষ।

সুপারমার্কেট কর্তৃপক্ষ থেকে জানা যায়, ৩০ লাখ টাকার খাবার ফেলে দেওয়া হয়েছে।

মানুষকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দেওয়ার অভিযোগে ওই নারীকে আটক করেছে পুলিশ। তবে সুপারমার্কেট কর্তৃপক্ষের দাবি, ২৫ মার্চ বিকেলে মার্জার্ট কিরকো নামে ওই নারী আমাদের সুপারমার্কেটে এসে নিজেকে করোনা আক্রান্ত দাবি করেন। তারপর ইচ্ছাকৃতভাবে আমাদের ভালো খাবারের ওপর কফ ফেলেন।

এ ঘটনার পর সুপারমার্কেটের কর্মীরা নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে যত দ্রুত সম্ভব ওই নারীকে সুপারমার্কেট থেকে বের করে দেন।

তারপর ওইসব খাবারও ফেলে দেওয়া হয়। এমনকি পুরো সুপারমার্কেট জীবাণুমুক্ত করা হয়।

পুলিশ বলছে, ওই নারী আরো কয়েক জায়গায় এ ধরনের আচরণ করেছেন। পরে এক দোকান থেকে ১২ বোতল বিয়ার চুরি করেছেন তিনি। কয়েক ঘণ্টা পরে তাকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ আরো জানিয়েছে, ওই নারী দাবি করেছেন- তিনি মজার ছলে এটি করেছেন। তার মানসিক সমস্যা রয়েছে। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা, তা জানার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। চলতি বছরের ৮ এপ্রিল তাকে আদালতে তোলা হবে। সূত্র: এনবিসি নিউজ, লোকাল১২, দ্য ডেইলি বিস্ট