Wednesday April14,2021

আগাম সতর্কতা ছিল৷ মোকাবিলায় ব্যবস্থাপনাতেও ছিল না কোনও কমতি  ৷ তবু রোখা গেল না প্রাণহানি৷ প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফণীর দাপটে ওড়িশায় এখনও পর্যন্ত চার জনের  মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে৷ মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷]

বৃহস্পতিবার রাত থেকে পুরীর আবহাওয়ার অবনতি হতে শুরু করে৷ ভারী বৃষ্টির সঙ্গে বইতে থাকে ঝোড়ো হাওয়া৷ শুক্রবার বেলা বারোটা নাগাদ ঘূর্ণিঝড় ফণী ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়বে বলেই আশঙ্কা করেছিলেন আবহবিদরা৷ কিন্তু পূর্ব নির্ধারিত সময়ের ঘণ্টাতিনেক আগেই স্থলভাগে ঢুকে পড়ে প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়৷ সকাল ৮টা ৫০ মিনিট নাগাদ আছড়ে পড়ে ফণী৷ প্রায় ২০০ কিলোমিটার বেগে বইতে থাকে ঝোড়ো হাওয়া৷ সঙ্গে প্রবল বৃষ্টি৷ জোড়া ফলায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত পুরীর অন্তত ১১টি জেলা৷ বহু কাঁচা বাড়ির চাল উড়ে গিয়েছে৷ স্থানীয়দের দাবি, প্রবল ঝড়ে উড়ে গিয়েছে কারও কারও বাড়ি বা হোটেলের জলের ট্যাঙ্ক৷ বহুতল হোটেলগুলিও ঝড়বৃষ্টির দাপটে কাঁপছিল বলেও মনে হয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীদের৷

শুদ্ধস্বর/আইপি