Tuesday April20,2021

আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিক লিটন জানান, প্রায় কোটি টাকার মালামাল ছিল লিটনের। এই মার্কেটে তার ছিল ৮ টি দোকান। যেসব দোকান ছিল মুদি দোকান। ছিল বেবি ফুড, তেল, চাল, ডাল, মশলা ইত্যাদি। তিনি বলেন, তার প্রায় কোটি টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। তিনি আরো বলেন, নিঃস্ব, ফকির হয়ে গেলাম। আর মাথা তুলে দাড়াতে পারব না। ব্যাংকে লোন আছে আমার।

মার্কেটে প্লাস্টিক সামগ্রী ও কাপড়ের দোকান ছিল আমেনা বেগমের। তিনি গতকাল আড়াই লাখ টাকার পণ্য এনেছেন। আর আজ সকালেই আগুনে সব পুড়ে ছাই।
আজ বিক্রি করতে গতকাল রাতে ৬০ হাজার টাকার মাছ এনেছেন সজিব মিয়া। এই টাকার মধ্যে ৪০ হাজার টাকাই ধারে। এই মাছের সঙ্গে জ্বলে গেছে সজিব মিয়ার স্বপ্নও। শুধু সজিব মিয়া, আমেনা বেগম, লিটন নন এরকম অন্তত দেড়শো ব্যবসায়ীর দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে গুলশান ডিএনসিসি মার্কেটে। যাদের সকলেই প্রায় সর্বশান্ত। দিকবিদিক ছুটছেন তারা, কি করবেন এখন?