Sunday April18,2021

দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার শপথ নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ও মোকাব্বির হোসেন। তাদের শপথের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রেখেছে সংসদ সচিবালয়।

এদিকে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করলে সুলতান মনসুর ও মোকাব্বিরের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেয়া হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বসছে গণফোরাম। বুধবার সন্ধ্যায় গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় বৈঠক তাদের ভাগ্য নির্ধারণ করা হবে। বৈঠকে এই দুই নেতাকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে। সেক্ষেত্রে তারা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে পারবেন কি-না সেটি নিয়ে একটি জটিল প্রশ্ন দাঁড় হবে।

সুলতান মোহাম্মদ মনসুর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে গণফোরামের প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছেন। আর মোকাব্বির হোসেন সিলেট-২ আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমর্থন নিয়ে জয়ী হয়েছেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও গণফোরাম একাদশ নির্বাচনের ফল বর্জন করে শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্তে অনড়। ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত অপর ৫ সদস্য শপথ না নিলেও একাদশ সংসদে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সুলতান ও মোকাব্বির।

সংসদ সচিবালয় থেকে জানানো হয়েছে, ৭ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টায় স্পিকারের কার্যালয়ে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ এবং মোকাব্বির খানের শপথ অনুষ্ঠান হবে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তাদের শপথ পড়াবেন।

এ বিষয়ে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু মঙ্গলবার বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে তারা শপথ নিলে অবশ্যই আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। দলীয় সিদ্ধান্ত ও আইনগত সিদ্ধান্ত যা নেয়া দরকার, সেগুলো আমরা নেব।