Friday March5,2021

বুলবুল তালুকদারের কলাম “বীজগণিত নয় রাজনীতিতে পাটিগণিতের সরল অংক চাই”

দুইটা নিলে একটা ফ্রি, এটা জনগণ যতটা বুঝে ,  • (a + b)² = a² + 2ab + b² •  ঠিক ততটাই কম বুঝে । আমাদের দেশে রাজনীতি কেমনজানি শুধু বীজগণিতের হিসেবে চলে ! রাজনীতি যদি জনগণের জন্যই হয় , তাহলে হিসেবটাও আমাদের মত আম জনতার জন্য সহজ ও সরল হওয়া উচিত । সহজ ভাষায় রাজনীতির মূল কার্যক্রম তো কল্যাণ । সেটা দেশ , জনগণের কল্যাণে ! তাই যদি হয় , তাহলে সাধারণ জনগণের জন্য রাজনীতি এতটা মারপ্যাঁচের কেন ? সহজ ও সরল পথে রাজনীতি নয় কেন ? দুইটা নিলে একটা ফ্রি না দেন , অন্তত দুইটা নিলে দুইটার দাম নিন , তাহলেই তো সহজ ও সরল হয় । মারপ্যাঁচের রাজনীতি করাই যেন আমাদের দেশের রাজনীতিবিদদের একটা হাতিয়ার ! যে যত মারপ্যাঁচ দিতে পারেন , তিনি ততই বীজ্ঞ রাজনীতিবিদ ! আরে ভাই , এই বীজ্ঞতা আপনারা দেশ চালানোর ক্ষেত্রে যত খুশি দেখান , কিন্তু জনগণকে কেন দেখান ?  সাধারণ জনগণতো আর আপনাদের মত এত বীজ্ঞ নয় । তবে একটা কথা পরিষ্কার করে বলা ভালো ,  সাধারণ জনগণ কিন্তু আপনাদের এই মারপ্যাঁচের বীজ্ঞতাকে মোটেও ধার ধারে না । তার প্রমাণ দেশে দু-চারটা সঠিক নির্বাচনেই জনগণ দিয়েছে । সুযোগে আপনাদেরকে ক্ষমতার মসনদে বসিয়েছে , আবার নামিয়েছেও বটে ।

দেশে বর্তমানে ফ্রন্ট, ইভিএম বেশ হটকেক । একটা যুক্তফ্রন্ট যেই না ঘোষনা হলো , ওমনি শুরু হয়ে গেলো নানান হিসেব নিকেস ! বাজারে নানান কথা , স্বরযন্ত্রের কথা , ভোটের হিসেবের কথা !  যুক্তফ্রন্টের আতুর ঘরেই ঢুকে গেলো নানান বীজগণিতের অংক । লক্ষ্যণীয় যে এই ফ্রন্ট কে সবাই শুভেচ্ছা জানাচ্ছে সত্যি, তবে /কিন্তু দিয়ে ! আবার অন্যদিকে যুক্তফ্রন্ট শক্তিমাত্রার দিক দিয়ে দূর্বল হলেও , কিছু বীজ্ঞ (প্যচের) রাজনীতিবিদরা আছেন , যারা এককভাবেই নিজেস্বতায় রাজনীতির মাঠে বেশ পরিচিত বটে । বলা যায় দেশের দুই বড় দলের যে কারো সাথেই এই বীজ্ঞ রাজনীতিবিদরা যুক্ত হয়ে কাজ করলে আবার ভোটের হিসেব একটু অন্যরকম হতে পারে । এককভাবে এই ফ্রন্ট জিরো তবে সামগ্রিকভাবে এরাই যে মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে , সেটা দুই বড় দল বেশ ভালোই বুঝেন । সেই মাথা ব্যথাই মনে হয় এখন বড় দল দুটোর মাথা ব্যথা । কেননা পৃথিবী জুড়েই এখন ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জোট বিষয়টি বেশ উপকারী বটে ।

বলছিলাম ফ্রন্ট নিয়ে নানান কথা বাজারে চালু হয়ে গেছে । তাতো হবারই কথা , কেননা সামনে জাতিয় নির্বাচন, এই সময়ে হঠাত্ করে একটি জোট বাজারে চলে এসেছে । যদিও যুক্তফ্রন্ট বলছে , তাদের এই প্রক্রিয়া দীর্ঘদিন যাবত্ চলছে , হয়তো বা । তবে একথাও বলতেই হবে যুক্তফ্রন্ট একেবারেই নির্বাচনের বাগানে এসে ফুটছে ! বাজারে সন্দেহটা মনে হয় একারণেই তৈরি হয়েছে ।

লক্ষ্য করুণ , ক্ষমতাসীনরা বলছে এই ফ্রন্ট স্বাধীনতার শক্তির পক্ষে থাকবে বলে আশা করি ।  তার মানে পরিষ্কার, যে বিএনপির সাথে জামাত আছে তাদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা যদি ফ্রন্ট থেকে আসে , তাহলে এটা যে একটা স্বরযন্ত্রের অংশ সেটা যে করেই হোক ক্ষমতাসীনরা প্রমাণ করেই ছাড়বে । আবার অন্যদিকে বিএনপির দাবী দেশে যে নৈরাজ্য চলছে , আশা করি এই ফ্রন্ট একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবীতে সকল গণতান্ত্রিক (!) শক্তির সাথে থাকবে ।  একেই বলে সম্ভবত মাইনক্কার চিপা । আমরা সাধারণ জনগণ হয়তো ভাবচ্ছি ,  কোনদিকে ফ্রন্ট ঝুঁকবে , সেটা যুক্তফ্রন্টের জন্য একটি বিষফোঁরা হতে পারে , এখানে স্পষ্ট  করে বলি ,মোটেও না । কেননা নির্বাচনী কানুনে যুক্তফ্রন্ট ফুঁটেছে , সেটার একটা নার্সিং করেই ফোঁটা । ওই যে লেখার পূর্বেই বলেছি , আমাদের রাজনীতি কোনো সহজ সরল পাটিগণিতের হিসেবে চলে না , চলে বীজগণিতের হিসেবে ! এখন সামনে দেখার বিষয় এই যুক্তফ্রন্ট বীজগণিতের কোন সুত্রের ব্যবহার করে ?
বীজগণিত এর কিছু সূত্র ।
• (a + b)² = a² + 2ab + b²  নাকি
• (a + b + c)² = a² + b² + c² +2ab + 2bc + 2ca নাকি
• (a – b)³ = a³ – 3a²b + 3ab² – b³
সুত্র গুলো কেন লিখলাম ?  কোন সুত্র যুক্তফ্রন্ট সামনে গ্রহণ করে সেটা দেখার জন্য আরো সামান্য কিছুদিন অপেক্ষায় থাকতে হবে ।  কেননা যত কথাই বলা হোক , সামনে ভোটের হিসেব । আগামীতে এই ভোটের হিসেব নিয়ে কিছু লেখার ইচ্ছে রইলো । যুক্তফ্রন্টের জন্য শুভেচ্ছা রইলো এবং সর্বোপরি দেশের কল্যাণে যুক্তফ্রন্ট কাজ করুক , সেই আশাও পোষণ করি ।

বুলবুল তালুকদার
সহকারী সম্পাদক .শুদ্ধস্বর ডটকম